সরকারের আন্তরিকতা ও সহযোগিতায় বর্তমানে এ কমিশনের সক্ষমতা অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে

সরকারের আন্তরিকতা ও সহযোগিতায় বর্তমানে এ কমিশনের সক্ষমতা অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে

 চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট নুরুল আমিন রুহুল বলেছেন, মানবাধিকার সুরক্ষায় বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দৃষ্টিভঙ্গি অনুসরণ করে চলেছে। বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতিকে সার্বজনীনতা, নিরপেক্ষতা ও ভেদাভেদ পরিহারের নীতি অনুসরণ করে মানবাধিকার রক্ষার জন্য একটি দুর্গ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

  

সরকারের আন্তরিকতা ও সহযোগিতায় বর্তমানে এ কমিশনের সক্ষমতা অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে

গতকাল ১২ মার্চ শুক্রবার সকালে মতলব উত্তর উপজেলার এখলাছপুর বকুলতলার মেঘনা নদীর তীরে মতলব উত্তরে বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতি মতলব উত্তরে বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতি, মতলব উত্তর উপজেলা, ছেংগারচর পৌরসভা ও সকল ইউনিয়ন কমিটির পরিচিতি, আলোচনা সভা ও মিলন মেলায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট নুরুল আমিন রুহুল এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার দেশের সব নাগরিকের মানবাধিকার ও মর্যাদা রক্ষায় দৃঢ় প্রতিজ্ঞ এবং অঙ্গীকারাবদ্ধ। তাই জনগণের মানবাধিকার ও মর্যাদা রক্ষায় সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, ২০০৯ সালে শেখ হাসিনা সরকার গঠনের পরপরই স্বাধীন জাতীয় মানবাধিকার কমিশন গঠন করেন। সরকারের আন্তরিকতা ও সহযোগিতায় বর্তমানে এ কমিশনের সক্ষমতা অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে এবং কমিশন অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে ও স্বাধীনভাবে মানবাধিকার সুরক্ষায় ও উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, সংবিধান অনুযায়ী দেশের সব নাগরিক আইনের দৃষ্টিতে সমান এবং আইনের সমান আশ্রয় লাভের অধিকারী হলেও দরিদ্র জনগোষ্ঠী আর্থিক অস্বচ্ছলতা ও অন্যান্য কারণে এ অধিকার থেকে বঞ্চিত হতেন। তাদের এ অধিকার প্রতিষ্ঠায় শেখ হাসিনা সরকার আইনগত সহায়তা দেওয়ার আইন প্রণয়ন করেছে এবং এ আইনের অধীনে জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থা গঠন করা হয়েছে। বর্তমানে এ সংস্থা বিনা খরচে দরিদ্র ও অসহায় মানুষদের আইনি সহায়তা দিয়ে তাদের আইনের সমান আশ্রয় লাভের অধিকার প্রতিষ্ঠা করছে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকারের কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে আমাদের মানবাধিকার পরিস্থিতির ক্রমান্বয়ে উন্নতি ঘটছে। এক্ষেত্রে বিচার বিভাগেরও অবদান রয়েছে।

বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ কুদ্দুস, বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতির চেয়ারম্যান মোঃ মনজুর হোসেন ঈসা, মহাসচিব এডভোকেট সাইফুল ইসলাম সেকুল, চাঁদপুর জেলা জজ কোর্টের এপিপি এডভোকেট জসিম উদ্দিন, মতলব উত্তর প্রেসক্লাবের সভাপতি বোরহান উদ্দিন ডালিম, বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতির মতলব উত্তর উপজেলা সভাপতি মোঃ শহীদ উল্লাহ প্রধান, সাধারণ সম্পাদক কবি নূর মোহাম্মদ, ছেংগারচর পৌর সভাপতি আব্দুল মালেক খান, উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক জিএম ফারুক’সহ নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠানে মানবাধিকার কর্মীদের সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। দিনভর উপজেলা প্রায় ৪শ’ মানবাধিকার কর্মী মিলন মেলায় আনন্দ উপভোগ করেন।


Newer Posts Older Posts

Related posts