শাহরাস্তিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জায়গা দখলের অভিযোগ

শাহরাস্তিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জায়গা দখলের অভিযোগ

 শাহরাস্তি উপজেলার সূচীপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়নের রাগৈ গ্রামের আঃ মতিন সর্দারের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রতিপক্ষের জায়গা দখলের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত মতিন সর্দারকে নিবৃত্ত করে নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রাখার নির্দেশ দেন। 

শাহরাস্তিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জায়গা দখলের অভিযোগ


খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওই গ্রামের মৃতঃ লুৎফুর রহমানের পুত্র আঃ গণী গংয়ের সাথে একই গ্রামের মৃতঃ আঃ ওহাব সরদারের পুত্র আঃ মতিন সর্দারের ভূমি সংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে। মোঃ আঃ গণী গং শাহরাস্তি উপজেলার ১১২নং রাগৈ মৌজার সিএস ১৮৯, বিএস-২২৬ নং খতিয়ানভুক্ত সাবেক ২১১৯, হাল ৬৪৯০ দাগে ১৭ শতাংশ ও সাবেক ২১১৮, হাল ৬৪৮৯ দাগে ৬ শতাংশ, সর্বমোট ২৩ শতাংশ ভূমির মালিক, যার উত্তরে ইউনুস, দক্ষিণে সরকারি হালট, পূর্বে সরকারি হালট ও পশ্চিমে নিজ মালিকীয় পুকুর।

গত ২৪ জানুয়ারি রোববার সকাল ১০ ঘটিকার সময় আঃ গণী তার মালিকীয় জায়গা দেখতে গেলে আঃ মতিন সর্দার, মৃতঃ ইব্রাহীম সর্দারের পুত্র শেখ সাদী, মৃতঃ আইয়ুব আলী সর্দারের পুত্র ইউনুস আলী, মৃতঃ আনোয়ার হোসেন সর্দারের পুত্র নূরুল ইসলাম, মৃতঃ আঃ সাত্তার সর্দারের পুত্র মোঃ মহসীন, মৃতঃ আবুল হাসেমের পুত্র রাসেল হোসেন, মৃতঃ আলী আকবরের পুত্র ফয়েজ উল্যা, মৃতঃ তৈয়ব আলী সর্দারের পুত্র রুস্তম আলীসহ ১০/১২ জন অজ্ঞাত সন্ত্রাসি প্রকৃতির লোক আঃ গণীকে উক্ত জায়গা বেদখল করার হুমকি দেয়। তিনি এর প্রতিবাদ করলে তারা আক্রমন করতে উদ্যত হয়। আঃ গনীর ডাক চিৎকারে লোকজন এগিয়ে আসলে প্রতিপক্ষরা উক্ত জায়গা দখল করে স্থায়ী অবকাঠামো নির্মাণ ও বাধা দিলে প্রাণনাশের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে।     

আঃ গণী ভূমির দখল রোধ ও আইনি সমাধানের লক্ষে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট চাঁদপুর’র আদালতে ফৌজদারী কার্য বিধি আইনের ১৪৫ ধারা মতে আবেদন করলে আদালত তা গ্রহণপূর্বক উক্ত ভূমিতে নিষেধাজ্ঞার নির্দেশ দেয়।  

গত ২২ ফেব্রæয়ারী শাহরাস্তি থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ মঈনুল হোসেন নালিশী ভুমিতে শান্তি শৃঙ্খলা ও স্থিতিবস্থা বজায় রাখার জন্য সতর্কীকরণ নোটিশ দিলেও তা অমান্য করে আঃ মতিন সর্দার গং সেখানে নিষিদ্ধ ট্রাক্টরযোগে মাটি ভরাট করে দখলের কাজ শুরু করেন। খবর পেয়ে ১ মার্চ পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আঃ মতিন সর্দার গংকে নিবৃত্ত করে দখল বন্ধ ও আদালতের নির্দেশনা মেনে চলার জন্য বলেন।

আঃ গণী এ বিষয়ে বলেন, আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মতিন সর্দার জায়গা ভরাট শুরু করেছে। পুলিশ সাময়িকভাবে তাকে এ কাজ হতে বিরত রাখলেও সে যেকোন সময় পুনরায় জায়গা দখল ও আমাদের প্রাণে মেরে ফেলতে পারে। পুলিশ চলে যাওয়ার পর হতে তার লোকজন আমাদের আব্যহতভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন।

অভিযুক্ত আঃ মতিন সর্দারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি আদালতের নির্দেশনা অমান্য করিনি। যে জায়গায় মাটি ফেলেছি তা তর্কিত ভূমির অন্তর্ভুক্ত নয়। আদালত ৬৪৯০ ও ৬৪৮৯ দাগে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। আমি ৬৬১৩ দাগের জমিতে মাটি ভরাট করেছি, যা নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়ে না। 

শাহরাস্তি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল মান্নান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মাটি ভরাট বন্ধ করে দিয়েছে। কেউ নিষেধাজ্ঞা অমান্য করলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।


Newer Posts Older Posts

Related posts