চাঁদপুর সরকারি কলেজ মাঠে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালেই হবে ১৭ মার্চের শ্রদ্ধাঞ্জলি

চাঁদপুর সরকারি কলেজ মাঠে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালেই হবে ১৭ মার্চের শ্রদ্ধাঞ্জলি

 ১৭ মার্চ জাতীয় শিশু দিবস ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মবার্ষিকীতে জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন চাঁদপুর সরকারি কলেজ মাঠে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালেই হবে। চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত এ দিবসের কর্মসূচি বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ পর্বটি ইতিপূর্বে অঙ্গীকারের সামনে রাখা হলেও এটি পরিবর্তন করা হয়েছে। ১১ মার্চ বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বৃহস্পতিবার বিকেলে চাঁদপুর সরকারি কলেজ মাঠে গিয়ে সরজমিনে ম্যুরালটি পরিদর্শনও করেছেন। জেলা প্রশাসক এখানে অসম্ভব সুন্দর বঙ্গবন্ধুর স্থায়ী ম্যুরাল দেখে অভিভূত হন। এ সময় কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর অসিত বরণ দাশ উপস্থিত ছিলেন। কলেজ কর্তৃপক্ষ এখন সেভাবেই প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে অধ্যক্ষ জানিয়েছেন।

চাঁদপুর সরকারি কলেজ মাঠে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালেই হবে ১৭ মার্চের শ্রদ্ধাঞ্জলি


চাঁদপুর শহরের কোথাও বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থায়ীভাবে না থাকায় বিগতদিনে অঙ্গীকারের সামনে অস্থায়ীভাবে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি স্থাপন করে সেখানেই ১৭ মার্চ এবং ১৫ আগস্টের পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হতো। কিন্তু গত বছর চাঁদপুর সরকারি কলেজ মাঠে বিশাল আকারে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থায়ীভাবে নির্মাণ করা হয়। একই সাথে শহীদ মিনার ও স্মৃতিসৌধও স্থায়ীভাবে নির্মাণ করা হয়। সরকারি অর্থায়নে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর এটি নির্মাণ করে। চোখ জুড়িয়ে যাওয়ার মতো অসম্ভব সুন্দর এই ম্যুরালই হচ্ছে চাঁদপুর শহরে বঙ্গবন্ধুর স্থায়ী ম্যুরাল। শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি গতবছর এটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন। এরপর গতবছর পনর আগস্ট জাতীয় শোক দিবসের শ্রদ্ধাঞ্জলি কলেজ মাঠে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালেই অর্পণ করা হয়। তাই এখন থেকে কলেজ মাঠে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালেই ১৭ মার্চ এবং ১৫ আগস্টে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা উপযুক্ত পরিবেশ এবং যুক্তিযুক্ত মনে করে জেলা প্রশাসন সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছে।

এদিকে কলেজ মাঠে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ করার সিদ্ধান্ত নেয়ায় জেলা প্রশাসকের প্রতি অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে চাঁদপুরের আপামর জনসাধারণ।


Newer Posts Older Posts

Related posts